ডলারের দাম বৃদ্ধির পিছনে দায়ী প্রবাসীদের রেমিটেন্স

3.1/5 - (15 votes)

বৈধ পথে প্রবাসীরা রেমিটেন্স পাঠালে প্রতি মার্কিন ডলারের বিপরীতে ১১০ টাকা ৭০ পয়সা দেবে বাংলাদেশের ব্যাংকগুলি। গত রবিবার অ্যাসোসিয়েশন অফ ব্যাংকার্স বাংলাদেশ (ABB) এবং বাংলাদেশ ফরেন এক্সচেঞ্জ ডিলার্স অ্যাসোসিয়েশন(BAFEDA) এর বৈঠক থেকে এমনটাই জানা গিয়েছে। এছাড়াও ওই বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় যে রেমিটেন্স রপ্তানিকারকদের ডলার প্রতি ১০৫ টাকার পরিবর্তে ১০৬ টাকা দেওয়া হবে।

প্রবাসীদের ক্ষেত্রে ব্যাংক প্রতি ডলারের মূল্য ১০৮ টাকা দেবে এমনটাই বলা হয়েছে বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী। অবশ্য এই অঙ্কের সাথে যদি ২.৫ শতাংশ সরকার ঘোষিত প্রণোদনা যোগ করা হয় তাহলে অংকটা দাঁড়ায় ১১০ টাকা ৭০ পয়সা। অবশ্য বিদেশি এক্সচেঞ্জ হাউজেও ডলারের দামের সঙ্গে প্রণোদনা যোগ করে ১১০ টাকা ৭০ পয়সা দেখানো হবে।

যদিও বর্তমান সময়ে প্রত্যেক প্রবাসী ব্যাংক থেকে প্রতি ডলার পিছু বিনিময় হার ১০৭ টাকা পাচ্ছেন। মার্চের শেষে ডলারের রেট ১০৪ টাকা থেকে বাড়িয়ে ১০৫ টাকা করা হয়েছিল। বর্তমানে বৈঠকে রপ্তানিকারকদের জন্য ডলারের বিনিময় হার ১০৬ টাকা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

বিগত বছর সেপ্টেম্বর মাসে ব্যাংকগুলো রেমিটেন্স রূপে পাঠানো প্রতি মার্কিন ডলারের জন্য ১০৭ টাকা এবং রপ্তানিকারকদের ৯৯ টাকা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল।

Leave a Comment